Apr 23, 2014, 4:27 pm (BST)

সংবাদ শিরোনাম

বাসস রাষ্ট্রপতি : *বিশ্ববিদ্যালয় কখনোই মুনাফা অর্জনকারী ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হতে পারে না : রাষ্ট্রপতি*   |    জাতীয় সংবাদ : *জিএসপি সুবিধা পেতে ইতোমধ্যে প্রায় সকল শর্তই পূরণ করেছে বাংলাদেশ : শিল্পমন্ত্রী *বাল্যবিবাহ রোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী *জুন মাসে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মান কাজ শুরু হবে : যোগাযোগমন্ত্রী*   |   বাসস প্রধানমন্ত্রী : **৬ষ্ঠ শ্রেণী থেকে অন্তত একটি ভোকেশনাল বিষয়ে শিক্ষা দেয়া হবে : প্রধানমন্ত্রী **   |    জাতীয় সংবাদ : *দেশীয় শিল্পের স্বার্থ সুরক্ষায় সরকার সম্ভব সব ধরনের সহায়তা দেবে : আমির হোসেন আমু *দেশের গণমাধ্যম জগতের নেতৃত্ব দেয়া উচিত বাসস-এর : তথ্য সচিব *রাজধানীর বেগুনবাড়ি এলাকায় বেঙ্গল কোম্পানির গোডাউনে আগুন*   |    অথর্নীতি : *জিএসপি সুবিধা ফিরে পেতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে *মোবাইল ব্যাংকিংয়ের গ্রাহক সংখ্যা দেড় কোটি ছাড়িয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য*   |   খেলাধুলার সংবাদ : *শ্রীলংকা টি-২০ দলের নতুন অধিনায়ক মালিঙ্গা *ইংলিশ কাউন্টি ক্লাব এসেক্সের বদান্যতায় ক্রিকেটে ফিরছেন ব্যাড বয় রাইডার *শেষ মুহূর্তে প্রস্তুত হবে সাওপাওলোর স্টেডিয়াম : ফিফা*   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : *স্বার্থে আঘাত এলে পাল্টা জবাব দেবে রাশিয়া : সের্গেই ল্যাভরভ *ইউক্রেন সংকটে কেরির গভীর উদ্বেগ প্রকাশ *কায়রোতে বোমা হামলায় পুলিশের জেনারেল নিহত *ভারতে কাল ১১৭ আসনে ৬ষ্ঠ পর্বের লোকসভা নির্বাচন*   |    বিভাগীয় সংবাদ : *চট্টগ্রামে সাংবাদিকতা বিষয়ে তিন দিনের মৌলিক প্রশিক্ষণ কর্মশালা শেষ *   |   
প্রচ্ছদ | যোগাযোগ | Print
 
 
 
আবহাওয়া
 
সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত
 
নামাযের সময়
 
 
 
পঞ্চগড়ে চা চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে
 
পঞ্চগড়, ১৭ সেপ্টেম্বর,২০১২ (বাসস) : পঞ্চগড়ে কৃষকদের মধ্যে চা চাষ ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ছোট ও প্রান্তিক কৃষকরা চা চাষ করে তাদের আর্থ সামাজিক অবস্থার পরিবর্তন ঘটিয়েছে। শতাধিক পুরুষ মহিলা চা বাগানে চা পাতা তোলার কাজে নিয়োজিত রয়েছে। এতে তারা তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটিয়ে আত্বনির্ভরশীল হচ্ছে।
জানা গেছে ,বর্তমানে পঞ্চগড় জেলায় ২,২০০ একর জমির উপর ছোট-বড় ২৬০ টি চা বাগানে প্রায় ৮ হাজার দক্ষ ও অদক্ষ কর্মী রয়েছে। যাদের মধ্যে অধিকাংশই কর্মজীবী নারী ।
মাঝারী বাগানের চা উৎপাদনকারীরা সুখী, কারণ তারা ১১ টাকা কেজি দরে উৎপাদিত চা পাতা জেলার তেতুলীয়া চা প্রক্রিয়াকরন কারখানায় এবং করতোয়া টি বাগান সবুজ চা পাতা ত্রয় করছে ।
বাংলাদেশ টি বোর্ড জেলায় ১৬ হাজার হেক্টর জমি চা চাষের জন্য নির্ধারন করেছে। চা চাষ প্রতি বৎসর পঞ্চগড়ে বিস্তৃত হচ্ছে। অধিকাংশ চা বাগান ছোট আকারের তবে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক তাদের নিজস্ব জমিতে চা চাষ করে চা পাতা প্রস্তুত কারখানা ও কেম্পানীর নিকট বিত্রি করছে।
এ ব্যাপারে পঞ্চগড় চেম্বার অফ কর্মাসের সভাপতি ইকবাল কাইসার মিন্টু জানান , পঞ্চগড় অঞ্চলে ব্যাপক আকারে চা চাষের বিস্তৃতি ঘটছে। সেই সাথে কর্ম সংস্থানের সুযোগ সৃষ্ঠি করা সহ অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাচ্ছে। চা চাষ হচ্ছে অধিকাংশই ছোট আকারে তবে ছোট, মাঝারী ও প্রান্তিক কৃষকরা চা চাষে আকৃষ্ট হচ্ছে।
মোজাহেদুল আলী বাসসকে জানান যে, তিনি ৮ বিঘা জমিতে চা চাষ করেছেন এবং ২২ বিঘা জমিতে চা চাষের জন্য নির্ধারন করেছেন এবং ১শ থেকে ১২০ কেজি চাপাতা প্রতি সপ্তাহে তার বাগান থেকে উত্তোলন করতে পারছেন।
 
 
 
প্রচ্ছদ | যোগাযোগ | Print
সার্বিক তত্ত্বাবধানে : বাসস আই,টি বিভাগ এবং বাংলাদেশ অনলাইন লিমিটেড