Apr 19, 2014, 7:52 am (BST)

সংবাদ শিরোনাম

জাতীয় সংবাদ : * দেশের বিভিন্ন স্থানে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে * চাঁপাইনবাবগঞ্জে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলিসহ তিনজন আটক *   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : * চীনে খনি দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ জনে *   |    বিভাগীয় সংবাদ : অনাবৃষ্টির কারণে কুড়িগ্রামে বোরো ও পাট চাষিরা সংকটে *    |   খেলাধুলার সংবাদ : ২০১৫ বিশ্বকাপে ভাল করার জন্য কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে জ্বলে উঠতে উন্মুখ পাকিস্তানের সাঈদ আজমল * আইপিএলে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা শীর্ষ দশ খেলোয়াড়   |   
প্রচ্ছদ | যোগাযোগ | Print
 
 
 
আবহাওয়া
 
সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত
 
নামাযের সময়
 
 
 
শিরোপা জয়ের লক্ষে শনিবার থাইল্যান্ড যাচ্ছে জাতীয় হকি দল
 
ঢাকা, ১২ এপ্রিল (বাসস) : পুরুষদের চতুর্থ এইচএফ কাপ হকিতে অংশ নিতে শনিবার থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়ছে ১৬ সদস্যের বাংলাদেশ হকি দল। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে আগামী ১৬ থেকে ২৪ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে আন্তর্জাতিক এই প্রতিযোগিতা।
আগের আসরে শিরোপা জয়ের সুখস্মৃতি রয়েছে বাংলাদেশ দলের। ২০০৮ সালে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত এএইচএফ কাপ হকিতে শিরোপা জয়ের মাধ্যমে জাতীকে বিরল এক অর্জন এনে দিয়েছিল দলটি। এবারো একই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চায় দলটি।
বৃহস্পতিবার জাতীয় হকি দলের অধিনায়ক রাসেল মাহমুদ জিমি বাসসকে বলেছেন যে, একটি ভারসাম্যপুর্ন দল গঠিত হয়েছে। শিরোপা পুনরুদ্ধারে তিনি আশাবাদী বলে উল্লেখ করেছেন।
জিমি বলেন, আমাদের লক্ষ্য অবশ্যই শিরোপা ধরে রাখা। তবে প্রথম লক্ষ্য হবে ম্যাচ বাই ম্যাচ জয়লাভ করা। যদিও গ্রপ পর্বে আমাদের প্রতিপক্ষ দলগুলো খুবই শক্তিশালী। তবে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা বিগত দেড়মাস ধরে ভাল প্রস্তুতি নিয়েছে। দুটি অনুশীলন ম্যাচে সফল হলেও তা পর্যাপ্ত নয় বলেও মনে করেন তিনি।
জিমি বলেন, অনুশীলন ম্যাচে বিকেএসপির বিপক্ষে (৭-১ গোলে) এবং বাংলাদেশ নৌবাহিনীর বিপক্ষে ( ১০-১ গোলে) জয়লাভ করলেও দলের সামর্থ্য বোঝার জন্য তা যথেষ্ট ছিল না। ওই ম্যাচ দিয়ে দলের ঘাটতি বের করা সম্ভব ছিলনা। কারণ প্রতিপক্ষ দল দুটি আমাদের সমমানের ছিলনা।
এক প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন যে, স্ট্রাইকার নিলয় ইনজুরী থেকে সম্পুর্ণভাবে মুক্ত। আগের আসরের সদস্য ইসা মিয়ার ইনজুরীর কারণে থাইল্যান্ডগামী স্কোয়াডে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
অধিনায়কের সঙ্গে সুর মিলিয়ে শিরোপা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন দলীয় কোচ মাহবুব হারুন। তিনিও বলেছেন যে তাদের প্রথম ও প্রধান লক্ষ্য শিরোপা ধরে রাখা। তিনি বলেন, আমরা কোন প্রতিপক্ষ দলকেই হাল্কাভাবে দেখছিনা। আমি বিশ্বাস করি আমাদের প্রতিপক্ষ দলগুলো যথেষ্ঠ শক্তিশালী এবং তারাও শিরোপার দাবীদার। তবে শিরোপা জয় করতে হলে টুর্ণামেন্টের প্রতিটি ম্যাচেই আমাদেরকে জয়লাভ করতে হবে। এসময় তিনি আরো একটি লক্ষের কথা জানান। আর তা হচ্ছে চলতি বছর এশিয়া কাপের মুলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করা। আর এ জন্য এএইচএফ কাপে অন্তত ৪র্থ স্থান লাভ করতে হবে বাংলাদেশ দলের।
শিরোপা জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী টিম ম্যানেজার এম আলমগীর কবিরও। তিনি বলেন, অনুশীলন ক্যাম্পে ছেলেরা পর্যাপ্ত অনুশীলন করেছে। সবাই নিজেদের সোরা খেলার জন্য মুখিয়ে আছে। এখন দেখা যাক টুর্ণামেন্টে কি হয়।
টুর্ণামেন্টে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেবেন স্ট্রাইকার রাসেল মাহমুদ জিমি এবং তার সহকারী হিসেবে থাকবেন মামুনুর রহমান চয়ন।
এতে বিগ্রপ থেকে প্রাথমিক পর্বে খেলবে বাংলাদেশ। গ্রপভুক্ত বাকী দলগুলো হচ্ছে সিঙ্গাপুর, চাইনিজ তাইপে ও স্বাগতিক থাইল্যান্ড।
এ গ্রপে আছে ওমান, হংকং, চীন, শ্রীলংকা, উজবেকিস্তান ও কাজাকিস্তান।
আগামী ১৭ এপ্রিল চাইনিজ তাইপের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টুর্ণামেন্টে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ। ১৯ এপ্রিল গ্রপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে সিঙ্গাপুরের মোকাবেলা করবে জিমির দল। স্বাগতিক থাইল্যান্ডের বিপক্ষে ২০ এপ্রিল গ্রপ পর্বের শেষ ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে বাংলাদেশ।
টুর্ণামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৪ এপ্রিল।
বাংলাদেশ জাতীয় হকি দল- রাসেল মাহমুদ জিমি (অধিনায়ক), মামুনুর রহমান চয়ন (সহ-অধিনায়ক), জাহিদ হোসেন, রফিকুল ইসলাম, মশিউর রহমান বিপ্লব, ইমরান হাসান, তাপস বর্মন, আসাদুজ্জামান চন্দন, এএইচএম কামরুজ্জামান, শহিদুল্লাহ টিটু, শেখ মোঃ নান্নু, জাহিদ বিন তালিব শুভ, হাসান জুবায়ের নিলয়, ইকবাল নাদির প্রিন্স, খুরশিদুজ্জামান ও কৃষ্ণ কুমার।
 
 
 
প্রচ্ছদ | যোগাযোগ | Print
সার্বিক তত্ত্বাবধানে : বাসস আই,টি বিভাগ এবং বাংলাদেশ অনলাইন লিমিটেড