Apr 24, 2014, 6:51 am (BST)

সংবাদ শিরোনাম

আন্তর্জাতিক সংবাদ : কানাডার ভানকুভার দ্বীপে শক্তিশালী ভূমিকম্প   |   
প্রচ্ছদ | যোগাযোগ | Print
 
 
 
আবহাওয়া
 
সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত
 
নামাযের সময়
 
 
 
এটি আমাদেরকে ঝাঁকুনি দিয়েছে : সাকিব
 
কলোম্বো, ১৭ সেপ্টেম্বর (বাসস) : টি২০ বিশ্বকাপ ক্রিকেটকে সামনে রেখে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে হেরে গেছে বাংলাদেশ। আজ কলোম্বোতে দ্বিতীয় এ ম্যাচে ৫ রানে আয়ালল্যান্ডের কাছে পরাজিত হয়েছে টাইগাররা।
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। আজ অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ব্যাটিং নৈপুণ্য সত্ত্বেও নিয়মিত ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় আইরিশদের কাছে পরজয় বরণ করতে হয় মুশফিক বাহিনীকে।
খেলা শেষে এ পরাজয়কে ইতিবাচক হিসেবে নেয়ার কথা জানিয়ে বিশ্বসেরা অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসান বলেছেন, এটি বাংলাদেশ দলকে ঝাঁকুনি দিয়েছে। এর ফলে দল নতুন করে উজ্জীবিত হবে।
ম্যাচ হারার কারণ বিশ্লেষণ করে সাকিব আল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, আমার বিদায়ের পর দলে কোন বড় পার্টনারশীপ গড়ে না ওঠার কারণে আমাদেরকে হার মানতে হয়েছে। এটিকেই ম্যাচ হারের মুল টার্নিং পয়েন্ট উল্লেখ করে বিশ্ব সেরা অল রাউন্ডার বলেন, আমাদের হাতে ১০ ওভার অক্ষুন্ন থাকার পরও বিষয়টি নিয়ে কেউ ভেবেছে বলে মনে হয়নি।
এটি অবশ্য খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাসে চির ধরাতে পারবেনা উল্লেখ করে সাকিব বলেন, বরং এটি খেলোয়াড়দের ঝাকুনি দিয়ে কিছুটা উজ্জীবিত করবে। তিনি বলেন, আমার মনে হয় শেষ ১০ ওভারের ব্যাটিংয়ের সময় খেলোয়াড়দের মনোযোগে ঘাটতি ছিল। কারণ ব্যাটিং অনুযায়ী ম্যাচটি হারার কোন কারণই ছিলনা। যা হোক, প্রতিটি হার থেকেই শিক্ষা নিতে হবে। এখন আমরা বুঝতে পারছি কোন জায়গাটিতে আমাদের উন্নতি করতে হবে। আর কোন জায়গাটিতে তুলির শেষ আঁচড় লাগাতে হবে।
বাংলাদেশ দলের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, অনুশীলন ম্যাচের গুরুত্ব আছে। তবে এর গুরুত্ব এমন নয় যে হেরে গেলে মানসিকভাবেই বিপর্যস্ত হয়ে যেতে হবে। এই ম্যাচটির মাধ্যমে আপনি মুল্যায়ন করতে পারবেন কোন জায়গায় ব্যক্তিগত কিংবা দলগত পারফর্মেন্সের ঘাটতি রয়েছে। এই বিষয়গুলো চিহ্নিত করে সেগুলো নিয়ে কাজ করতে হবে।
সর্বোচ্চ ৫২ রান সংগ্রহকারী এই অল রাউন্ডার বলেন, এখানকার উইকেট খুবই ভাল। ব্যাটে বলও ঠিকমতই এসেছে। আউটফিল্ডও দ্রুত। আমারই ম্যাচটি শেষ করে আসা উচিত ছিল। কিন্ত মনে হয়েছে নিজের মতই ব্যাট করা দরকার।
আগামীতে দলগত পারফর্মেন্সের পাশাপাশি ব্যক্তিগত পারফর্মেন্সের দিকে জোর দিতে হবে উল্লেখ করে সাকিব বলেন, টুর্ণামেন্টে প্রথম ম্যাচে নামার আগে আমাদের হাতে অন্তত চার দিন সময় রযেছে। পরিবেশের ভিন্নতার কারণে প্রথম বল থেকেই মনোযোগি হতে হবে। সেটি সম্ভব হলে আমরা এখানে ভাল করতে পারব বলে আমি নিশ্চিত। একটি ম্যাচ জিততে পারলেই আমাদের জন্য শেষ আটে যাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হবে। সে জন্য ম্যাচ বাই ম্যাচ খেলতে হবে।
 
 
 
প্রচ্ছদ | যোগাযোগ | Print
সার্বিক তত্ত্বাবধানে : বাসস আই,টি বিভাগ এবং বাংলাদেশ অনলাইন লিমিটেড